Skip to main content

Posts

Showing posts from July, 2014

ইভ টিজিং বন্ধে প্রয়োজন অশ্লীলতা বেহায়াপনার বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন

ইভ টিজিং শব্দটির অর্থ নারীকে উত্ত্যক্ত করা, অসম্মান করা। সংবাদপত্রের পাতা উল্টালেই ইভ টিজিং নামক কুৎসিত চরিত্রের খবর আমাদের চোখের সামনে ভেসে ওঠে। ডিজিটাল যুগের হাওয়া লেগেছে বাংলাদেশের কিশোর-তরুণদের মাঝে, সেই হাওয়ার দাপটে তারা হারিয়ে ফেলছে তাদের ইতিহাস ঐতিহ্য সভ্যতা সংস্কৃতি। আর এজন্য তারা মানব জাতির আদি মাতা হাওয়া (আ:)-এর নাম ভুলে পশ্চিমাদের ইভকে চিনতে শুরু করেছে। কিন্তু দু:খজনক হলো তাদের চেনা ইভ সম্মানিত মাতা নন, শুধুই একজন নারী। আর বস্তুবাদী সভ্যতার ধারক এ ডিজুস তরুণদের কাছে নারী মানে উপাদেয় আর দশটা ভোগ্যবস্তু বৈ অন্য কিছু নয়। ইভ টিজিংয়ের মূল কারণ নিহিত এখানেই। ইভ টিজিং শব্দটি যেভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে তা পরিহার করা উচিত। কারণ এ ধরনের শব্দ ব্যবহার করে অপরাধীদের ঘৃণার মাত্রা কমিয়ে দেয়া হয়েছে। যাই হোক ইভ টিজিং বা নারীকে অসম্মান করা হয় এমন কাজ কোনক্রমেই গ্রহণযোগ্য নয়। এটি একটি মানবতাবিরোধী জঘন্য অপরাধ। কুরআনে এসেছে,




‘আর তোমরা ব্যভিচারের কাছেও যেয়ো না, নিশ্চয় তা অশ্লীল কাজ ও মন্দ পথ’ (সূরা বনী ইসরাঈল : ৩২)। যারা এ ধরনের কাজের সাথে জড়িত তাদেরকে কঠিন শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা সময়ের দাবী। যথাযথ …

পিতামাতার সাথে ব্যবহার: দুনিয়া ও আখিরাতে যদি সফল

গত পরশুদিন একটা বই পড়তেছিলাম।সেখানে পিতামাতার সাথে সদ্ব্যবহার নিয়ে বেশ কয়েকটি উপদেশ পেলাম। উপদেশগুলো আমার খুব ভাল লেগেছে।এগুলো বাস্তব জীবনে ফলো করা জরুরী বলে আমার মনে হয়েছে। আপনাদেরও কাজে লাগতে পারে মনে করে আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম।

বিবাহিত অবিবাহিত সবারই কাজে লাগবে ইনশাল্লাহ।তবে,যারা বিবাহিত তাদের পরিবারে শান্তি রক্ষার্থে এর মধ্যকার কিছু উপদেশ বাস্তবায়ন করা খুবই জরুরী। তাহলে,আসুন!আমরা সে উপদেশ গুলোতে একটু চোখ বুলিয়ে নিই।

১. পিতামাতার সাথে শিষ্টাচারিতা অবলম্বন কর। তাদেরকে উফ পর্যন্ত বলো না। তাদেরকে ধমক দিও না। তাদের সাথে সম্মানজনক কথা বল।
২. আল্লাহর অবাধ্যতামুলক নির্দেশ না হলে সর্বদা তাদের অনুগত থাক। আল্লাহ তায়ালার অবাধ্য হয়ে অন্য কারও আনুগত্য করবে না।
৩. পিতামাতার সাথে নম্র-ভদ্র ব্যবহার করবে। তাদের সামনে বিরক্তি প্রকাশ করবে না। তাদের দিকে ক্রোধের নজরে তাকাবে না।
৪. পিতামাতার মান সম্মানের দিকে খেয়াল রাখবে। তাদের সম্পদ অনুমতি ব্যতিত নেবে না।
৫. তাদের অনুমতি ছাড়া হলেও তারা খুশি হয় এমন কাজ করবে।
৬. তোমাদের নিজস্ব কাজসমুহে তাদের পরামর্শ নেবে। তাদের মতের বিরোধী কোন কাজ করতে বাধ্য হলে তাদের কাছে ওজ…

আত্-তাকভীর

১ ) যখন সূর্য আলোহীন হয়ে যাবে,২ ) যখন নক্ষত্র মলিন হয়ে যাবে,৩ ) যখন পর্বতমালা অপসারিত হবে,৪ ) যখন দশ মাসের গর্ভবতী উষ্ট্রীসমূহ উপেক্ষিত হবে;৫ ) যখন বন্য পশুরা একত্রিত হয়ে যাবে,৬ ) যখন সমুদ্রকে উত্তাল করে তোলা হবে, ৭ ) যখন আত্নাসমূহকে যুগল করা হবে,৮ ) যখন জীবন্ত প্রোথিত কন্যাকে জিজ্ঞেস করা হবে,

৯ ) কি অপরাধে তাকে হত্য করা হল?১০ ) যখন আমলনামা খোলা হবে, ১১ ) যখন আকাশের আবরণ অপসারিত হবে, ১২ ) যখন জাহান্নামের অগ্নি প্রজ্বলিত করা হবে ১৩ ) এবং যখন জান্মাত সন্নিকটবর্তী হবে,১৪ ) তখন প্রত্যেকেই জেনে নিবে সে কি উপস্থিত করেছে।১৫ ) আমি শপথ করি যেসব নক্ষত্রগুলো পশ্চাতে সরে যায়।১৬ ) চলমান হয় ও অদৃশ্য হয় ,১৭ ) শপথ নিশাবসান ও১৮ ) প্রভাত আগমন কালের,১৯ ) নিশ্চয় কোরআন সমমানিত রসূলের আনীত বাণী,২০ ) যিনি শক্তিশালী, আরশের মালিকের নিকট মর্যাদাশালী,২১ ) সবার মান্যবর, সেখানকার বিশ্বাসভাজন।২২ ) এবং তোমাদের সাথী পাগল নন। ২৩ ) তিনি সেই ফেরেশতাকে প্রকাশ্য দিগন্তে দেখেছেন।২৪ ) তিনি অদৃশ্য বিষয় বলতে কৃপনতা করেন না।২৫ ) এটা বিতাড়িত শয়তানের উক্তি নয়।২৬ ) অতএব, তোমরা কোথায় যাচছ?২৭ ) এটা তো কেবল বিশ্বাবাসীদের জন্যে উপদে…